publish on: Thursday 28 December 2017

‘পার্টি পার্টি মুডে আছি’

ফাইল ছবিঃ
‘পার্টি পাটি’ গানটি দারুণ সাড়া ফেলেছে। কেমন লাগছে? 
এ আনন্দের কথা বলে বোঝাতে পারব না। মাত্র তিন দিনে গানটির ভিউ সংখ্যা এত এত, ভাবতেই পারছি না। দর্শক যেভাবে গানটি পছন্দ করেছেন, তাতে শুধু আমি না, ছবির পুরো টিম খুশি। এ সাফল্য আমরা জন্য বাড়তি পাওনা। কারণ ‘বিজলী’ আমার প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান ববস্টারের প্রথম প্রযোজিত ছবি। রামুজিতে ‘নোলক’ ছবির সেটে বসেই গানটির সাফল্য উদ্‌যাপন করছি। আমি এখন ‘পার্টি পার্টি’ মুডে আছি।

এ সময়ে গানটি মুক্তি দেওয়ার কোনো কারণ আছে? 
গানটির ভিডিওর গল্প দেখলেই বুঝতে পারবেন, এটি আনন্দ-উল্লাসের গান। পার্টির আদলে দৃশ্যায়ন করা হয়েছে গানটি। ২৫ ডিসেম্বর বড়দিন, তা ছাড়া কয়েক দিন পরই থার্টি ফার্স্ট নাইট। এই দুই বিশেষ দিন উপলক্ষে প্রকাশ করা হয়েছে ভিডিওটি। গানটি দিয়ে আমরা সময়কে ধরতে চেয়েছি।
গানটির ভিডিও একটা সাড়া ফেলবে, তা শুটিংয়ের সময় ভাবতে পেরেছিলেন? 
ছবির পরিচালক ইফতেখার চৌধুরী পুরো ছবিটি অনেক যত্ন নিয়ে করেছেন। এই ছবির জন্য টানা দেড় বছর সময় দিয়েছি আমি। এই সময় অন্য কোনো কাজ করিনি। ছবির গানগুলোর জন্য একেবারেই নতুন লোকেশন খুঁজে বের করা হয়েছে। ‘পার্টি পার্টি’ গানটি থাইল্যান্ডের পাতায়াতে ক্লাব সিক্সটি সিক্সে শুটিং হয়েছে। এখানে বাংলা সিনেমার কোনো শুটিং হওয়ার খবর শুনিনি আগে। টানা তিন দিন শুটিং হয়েছে। গানটির কোরিওগ্রাফি করেছেন ভারতের নৃত্যপরিচালক আদিল শেখ। সব মিলে ভালো কিছু যে হবে, তা শুটিংয়ের সময়ই বুঝতে পেরেছি।

‘বিজলী’ কবে মুক্তি পাবে? 
আমরা একটা ভালো সময় ছবিটি মুক্তি দিতে চাই। এ বছর ঈদুল আজহায় মুক্তির পরিকল্পনা করেছিলাম। পরে পিছিয়ে দিই। ঢাকায় ফিরে ছবিটির পরিবেশক জাজ মাল্টিমিডিয়ার সঙ্গে বসে মুক্তির তারিখ চূড়ান্ত করব। তবে নতুন বছর ফেব্রুয়ারি মাসের শুরুর দিকে মুক্তি দেওয়ার পরিকল্পনা আছে।

রামুজি থেকে ফিরবেন কবে? 
আজ (বুধবার) রামুজিতে ‘নোলক’ ছবির প্রথম ধাপের কাজ শেষ হচ্ছে। রাতেই কলকাতা হয়ে ঢাকায় ফেরার কথা আছে। রামুজিতে ‘নোলক’ ছবির টানা ২৭ দিন শুটিং করেছি।

২৭ দিন কাজ করার পর কেমন লাগছে?
আগে এ ধরনের কাজ করিনি। গ্রাম-শহর মিলে সুন্দর গল্পের ছবি। মৌলিক গল্প। কোনো আপস না করেই কাজটি হচ্ছে। দারুণ উপভোগ করছি। ছবির বেশির ভাগ কাজ শেষ।