publish on: Friday 2 February 2018

খালেদার ‘গুরুত্বপূর্ণ বার্তা আসছে’

ফাইল ছবিঃ বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া (ফাইল ছবি)
বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া দলের জাতীয় নির্বাহী কমিটির সভায় দেশবাসীর উদ্দেশে ‘গুরুত্বপূর্ণ’ বার্তা নিয়ে আসছেন বলে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর জানিয়েছেন।
দুর্নীতি মামলার রায় সামনে রেখে শনিবার ঢাকার লো মেরিডিয়ান হোটেলে কেন্দ্রীয় কমিটির সব নেতার সঙ্গে মিলিত হচ্ছেন বিএনপি প্রধান।
ওই সভার প্রস্তুতি নিয়ে শুক্রবার বিডিনিউজ বিএনপি মহাসচিব বলেন, “নির্বাচনের এই বছরে চলমান রাজনৈতিক জটিল পরিস্থিতির প্রেক্ষাপটে আমাদের দলের জাতীয় নির্বাহী কমিটির এই সভাটি অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। এই সভা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ও তাৎপর্যপূর্ণ।
“এই সভা থেকে দলের চেয়ারপারসন দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া দেশবাসীর উদ্দেশে গুরুত্বপূর্ণ বার্তা দেবেন।”
ফখরুল জানান, সভায় দেশের চলমান রাজনীতি এবং আগামী নির্বাচন নিয়ে করণীয় সম্পর্কে তৃণমূলসহ কেন্দ্রীয় নেতাদের মতামত শুনবেন খালেদা জিয়া।
তত্ত্বাবধায়ক সরকারের দাবিতে ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির ভোট বর্জন করে সংসদের বাইরে আসা বিএনপি আবার নতুন চ্যালেঞ্জের সামনে। এ বছরের শেষ দিকে অনুষ্ঠেয় একাদশ সংসদ নির্বাচনের জন্যও নির্দলীয় সরকারের দাবি জানাচ্ছে দলটি, যাতে সায় নেই ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের।
এরমধ্যে ৮ ফেব্রুয়ারি জিয়া এতিমখানা ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার রায় হবে; দুই কোটি ১০ লাখ টাকা আত্মসাতের এই মামলার প্রধান আসামি খালেদা জিয়া শাস্তি হতে পারে বলে শঙ্কা রয়েছে দলটির নেতাদের। এই রায় ঘোষণার তারিখ ঠিক হওয়ার পর দলের শীর্ষ নেতাদের সঙ্গে বৈঠকে বসে কোনো কর্মসূচির ঘোষণা দেননি খালেদা জিয়া। তৃণমূল নেতাদের মত নিয়ে কর্মসূচি ঠিক করা হবে বলে দলটির পক্ষ জানানো হয়েছে।
লো মেরিডিয়ানের গ্রান্ড বলরুমে সকাল ১০টায় শুরু যাওয়া বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির বৈঠকের আলোচ্যসূচিতে রাজনৈতিক পরিস্থিতি ও আগামী নির্বাচন ছাড়াও দেশের অর্থনৈতিক, সামাজিক পরিস্থিতি এবং দলের সাংগঠনিক কার্যক্রমের মতো বিষয় রয়েছে।
৫০২ সদস্যের নির্বাহী কমিটির সদস্যদের পরিচয়পত্র বিতরণ বিকালে শেষ হয়েছে বলে বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী জানিয়েছেন।
তিনি বলেন, “জাতীয় নির্বাহী কমিটির সভার সব প্রস্তুতি শেষ হয়েছে। শোক প্রস্তাবও তৈরি হয়ে গেছে। বৈঠকের অনুষ্ঠানস্থলের অঙ্গসজ্জার কাজও শেষ পর্যায়ে।
নির্বাহী কমিটির ৫০২ সদস্যের বাইরে জেলা ও মহানগর সভাপতিরা পদাধিকার বলে বৈঠকে আমন্ত্রণ পেয়েছেন বলে জানান রিজভী।
এছাড়া দলের জাতীয় স্থায়ী কমিটি ও চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্যরাও সভায় থাকছেন।
২০১৬ সালের ১৯ মার্চ দলের ষষ্ঠ জাতীয় কাউন্সিলের সাড়ে চার মাস পর ৫০২ সদস্যের জাতীয় নির্বাহী কমিটি ঘোষণা করেন খালেদা জিয়া। এরপর এই প্রথম ওই পর্ষদের নেতাদের নিয়ে বসছেন তিনি, যদিও বিএনপির গঠনতন্ত্র অনুযায়ী ছয় মাস অন্তর এই সভা হওয়ার কথা।
সভার উদ্বোধনী অনুষ্ঠান সরাসরি ফেইসবুকে সম্প্রচার করা হবে বলে বিএনপি চেয়ারপারসনের প্রেস উইংয়ের সদস্য শায়রুল কবির খান জানিয়েছেন।